Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

ব্রেকিং নিউজঃ

পাকিস্তানকে একঘরে করে ছাড়বে ভারত ।। কাশ্মীরে হামলার পর হুঁশিয়ারি

আপডেটঃ 1:31 pm | February 16, 2019

বাহাদুর ডেস্ক :

কাশ্মীরে সিআরপিএফের গাড়িবহরে বোমা হামলায় ৪৬ জওয়ানের প্রাণহানির জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করছে ভারত। দেশটি হুমকি দিয়েছে, পাকিস্তানকে বিশ্বদরবার থেকে একঘরে করে ছাড়া হবে। সে জন্য যতটা দরকার, কূটনৈতিক তৎপরতা চালাবে দিল্লি। এ ছাড়া হামলার সমুচিত জবাব দেওয়ারও হুমকি দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ওই হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। পাকিস্তানকে ওই জঙ্গিদের আশ্রয় না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। খবর বিবিসি ও এনডিটিভির।

ভারতীয় রিজার্ভ পুলিশ বাহিনীর ২৫০০ সদস্যকে নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে ৭০টি গাড়ির একটি বহর জম্মু থেকে কাশ্মীর যাচ্ছিল। এর মধ্যে দুটি গাড়িকে লক্ষ্য করে জোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলা চালায় জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই মোহাম্মদ। এতে ৪৪ জন জওয়ান নিহত হন। আহত হয় আরও অনেকে। হামলার পর এক বিবৃতিতে দায় স্বীকার করে জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ। গোষ্ঠীটি কাশ্মীরে ভারতীয় শাসনের অবসান চায়। মতাদর্শগতভাবে কাশ্মীরকে পাকিস্তানের অঙ্গীভূত করার পক্ষে অবস্থান তাদের।

হামলার জন্য ইসলামাবাদকে দায়ী করে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, জইশ-ই মোহাম্মদের নেতৃত্ব দেয় মাসুদ আজহার। তাকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে বলা হয়, মাসুদ আজহারকে ভারতসহ যে কোনো স্থানে হামলা চালানোর দায়মুক্তি দিয়েছে ইসলামাবাদ। কাশ্মীর হামলার জন্য দায়ী পাকিস্তান। কাশ্মীরের হামলা নিয়ে গতকাল শুক্রবার সকালে নয়াদিল্লিতে জরুরি বৈঠকে বসে ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ অন্য শীর্ষ মন্ত্রীরা বৈঠকে অংশ নেন। মোদি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, যারা এ হামলা চালিয়েছে তারা ‘মহাভুল’ করেছে। এর জন্য ‘চরম মূল্য’ দিতে হবে তাদের। তিনি সেনাবাহিনীকে যে কোনো মুহূর্তে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের নির্দেশ দেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানান, পাকিস্তানকে ‘পুরোপুরি একঘরে’ করে দিতে সম্ভাব্য সব ধরনের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। এ হামলার প্রতিবাদে পাকিস্তানকে ভারতের দেওয়া ‘মোস্ট ফেভারড নেশন’-এর তকমা প্রত্যাহার করা হচ্ছে। জেটলি বলেন, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক পদক্ষেপ নেবে সরকার। কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চালাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। যারা হামলা চালিয়েছে এবং যারা এই হামলায় মদদ দিয়েছে, তাদের চরম মূল্য দিতে হবে। হামলার নিন্দা জানিয়েছেন ভারতের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা রাহুল গান্ধী এই হামলাকে কাপুরুষোচিত বলে উল্লেখ করেছেন।

কাশ্মীর হামলার নিন্দা যুক্তরাষ্ট্রের : কাশ্মীরে হামলার ঘটনায় কঠোর নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে জানায়, জঙ্গিবাদবিরোধী লড়াইয়ে ভারত সরকারের পাশে থাকতে যুক্তরাষ্ট্র ‘দৃঢ়ভাবে প্রতিশ্রুতবদ্ধ’। জঙ্গিদের আশ্রয় ও সমর্থন না দিতে বিশ্বের দেশগুলোর প্রতিও আহ্বান জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

জম্মুতে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ-সহিংসতা :দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে সিআরপিএফের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় শুক্রবার জম্মুতে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, বিক্ষোভে উভয়পক্ষ একে অপরকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ে। পরে বিক্ষোভকারীরা কয়েকটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শহরটিতে কারফিউ জারি করেছেন।

//ডেস্ক ইনচার্জ//

Print Friendly, PDF & Email