Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

ব্রেকিং নিউজঃ

গৌরীপুরে যাত্রীর প্যাকেটে গাঁজা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলো ডিবি’র ভুয়া দুই সাব-ইন্সপেক্টর!

আপডেটঃ 8:29 pm | April 07, 2019

 প্রধান প্রতিবেদক :
ময়মনসিংহের গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে রোববার (৭ এপ্রিল/১৯) আন্ত:নগর বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের তিনযাত্রীর লাগেজ ও দেহ তল্লাশী চালায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে দু’সাব ইন্সপেক্টর। দেহ তল্লাশীর সময় যাত্রীদের প্যাকেটে গাঁজা দিয়ে তাদেরকে আটকের নাটক সাজায়। এ সময় অন্যান্য যাত্রীদের সন্দেহ হলে রেলওয়ে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর ভুয়া দুই সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই)।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন তারা হলো ঢাকার জেলার কেরানীগঞ্জ উপজেলার ছোট কুশিয়ারবাগ গ্রামের জিয়াউর রহমানের পুত্র মো. বাদশা (৩২) ও গৌরীপুর উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নের কবিরাজবাড়ি এলাকার আব্দুল হাইয়ের পুত্র মো. বিপ্লব মিয়া (২৫)।
ভুক্তভোগী নেত্রকোণা জেলার দূর্গাপুর উপজেলার সংকলপুর গ্রামের মো. মোসলেম উদ্দিনের পুত্র মো. আলাল মিয়া (২৫), কালাচানের পুত্র মো. আলমগীর হোসেন (৩৫) ও বারহাট্টা থানার নরুল্লাহ গ্রামের আবাস উদ্দিনের পুত্র মো. সুমন মিয়া (২০) জানান, রোববার আন্ত:নগর বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনে গৌরীপুর স্টেশনে নামার পর দু’জন ব্যক্তি গোয়েন্দা পুলিশ ডিবি পরিচয় দিয়ে তাদের দেহ ও লাগেজ তল্লাশী চালায়। দেহ তল্লাশীর সময় প্রথমে আলাল মিয়ার প্যাকেটে গাঁজা ঢুকিয়ে দেয়। এরপর ওরা প্যাকেট থেকে গাঁজা বের করে আটকের নাটক করে। বিষয়টি আশপাশের লোকজনের সন্দেহ তাদের চ্যালেঞ্জ করে। উৎসুক জনতার ভিড় দেখে ছুটে আসেন গৌরীপুর রেলওয়ে ফাঁড়ির পুলিশ কন্সটেবল জামাল উদ্দিন। এরপরেই জানা যায়, ওরা গোয়েন্দা পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই)। জনতার গনধোলাই দিয়ে রেলওয়ে ফাঁড়িতে উত্তেজিত জনতার ভিড় জমে উঠে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য গৌরীপুর থানার সাব-ইন্সপেক্টর মো. আক্তার হোসেন ঘটনাস্থলে যান। গৌরীপুর রেলওয়ে ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ সোহেল রানা জানান, ডিবি’র ভুয়া দুই সাবইন্সপেক্টর (এসআই) গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহ রেলওয়ে থানায় প্রেরণ করা হচ্ছে।

//টি.কে/ওয়েভ-ইন//

Print Friendly, PDF & Email