Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

যে সব কারণে কমছে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা

আপডেটঃ 2:51 pm | April 19, 2019

বাহাদুর ডেস্ক :

মস্তিষ্কের সুরক্ষা বা সুস্থতার বিষয়ে প্রায় সবারই অজ্ঞতা বা উদাসীনতা কাজ করে। এ কারণে ধীরে ধীরে মস্তিষ্ক তার স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা হারায়। ক্ষতিগ্রস্থ হয় বুদ্ধিমত্তা।

মানুষের বুদ্ধিমত্তা মাপা হয় তার আইকিউ’র (Intelligence Quotient) ভিত্তিতে।  কিন্তু মস্তিষ্কের সুরক্ষা বা সুস্থতার বিষয়ে আমাদের অজ্ঞতা বা উদাসীনতার কারণে ধীরে ধীরে আইকিউ’র মাত্রা হ্রাস পায়। আমরা প্রায় প্রতিদিন এমন কিছু কাজ  করি যা আমাদের বুদ্ধিমত্তা কমিয়ে দেওয়ার জন্য দায়ী। আসুন কিছু অভ্যাস সম্পর্কে জেনে নিই, যেগুলো আমাদের মস্তিষ্কে খারাপ প্রভাব ফেলে-

১. অতিরিক্ত চিনি খাওয়ার অভ্যাস শুধু মেদই বাড়ায় না, সেই সঙ্গে মস্তিষ্কের ওপর খারাপ প্রভাব ফেলে। গবেষণায় দেখা গেছে, টানা প্রায় ৬ সপ্তাহ চিনি জাতীয় খাবার খেলে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা হ্রাস পায়। নতুন কোনো কিছু শেখার ক্ষমতাও নষ্ট হয়ে যায়। দুর্বল হয়ে পড়ে স্মৃতিশক্তি।

২. অনেকেই মনে করেন একসঙ্গে দুই বা তার বেশি কাজ করতে পারা কোনো দক্ষতা। কিন্তু বিষয় আসলে উল্টো। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা একটি নির্দিষ্ট সময়ে একটি কাজ করেন, তাদের চিন্তা করার ক্ষমতা অনেক বেশি। আর যারা একসঙ্গে অনেক কাজ করতে যান, তাদের চিন্তা করার ক্ষমতা অনেক কম।

৩. মাত্রাতিরিক্ত মানসিক চাপ আমাদের মস্তিষ্কের মারাত্মক ক্ষতি করে। অতিরিক্ত মানসিক চাপ আলজেইমার রোগের ঝুঁকিও বাড়িয়ে দেয়। এর ফলে লোপ পেতে থাকে মস্তিষ্কের স্বাভাবিক স্মৃতিশক্তি ও বুদ্ধিমত্তা।

৪. স্থূলতার খারাপ প্রভাব মস্তিষ্কের ওপরেও পড়ে। মাঝ বয়সের পর যারা মোটা হয়ে যান, তাদের চিন্তা করার ক্ষমতা হ্রাস পায়। সেই সঙ্গে স্মৃতিশক্তি দুর্বল হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়।

৫. অনেকে ধূমপান না করেও পরোক্ষ ধূমপানের প্রভাবে আইকিউ হারাতে থাকেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল মিশিগান ইউনিভার্সিটির একটি গবেষণা মতে, যে সব শিশু পরোক্ষ ধূমপানের শিকার, তাদের আইকিউ অন্যান্য শিশুর তুলনায় কম।

//টি.কে/ওয়েভ-ইন//

Print Friendly, PDF & Email