Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

বাড়ি-ভিটা লিখে না দেয়ায় নেশাগ্রস্থ পুত্রের কান্ড ॥ গৌরীপুরে পিতামাতাকে প্রহার ও হত্যার চেষ্টা

আপডেটঃ 8:55 pm | June 30, 2019

প্রধান প্রতিবেদক :
‘খাওয়ান না দে, খাইতে দে’ রিস্কাচালক বাবার এ আকুতিও শোনেনি পুত্র। সকাল থেকে রিকশা চালিয়ে পরিশ্রান্ত দেহ নিয়ে ৬০উর্ধ্ব মানুষটি দুপুরে খেতে বাড়ি যান। নেশাগ্রস্থ নিজপুত্র রতন মিয়া (২৮) জোরপুর্বক জমি লিখে নিতে চান। এতে রাজি না হওয়ায় পুত্রের হাতে নির্যাতনের শিকার হন তার বাবা মো. আলিম উদ্দিন (৬৫) ও মা আছিয়া খাতুন (৬০)। ক্ষিপ্ত হয়ে বাবা-মাকে মেরে ফেলতেও উদ্যত হলে গ্রামবাসী এ পুত্রকে আটকে রাখেন। ঘটনাটি ঘটে রোববার (৩০জুন/১৯) ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের নন্দীগ্রামে।

নন্দীগ্রামে মৃত উসন আলীর পুত্র মো. আলিম উদ্দিন জানান, ২ ছেলে ও ২ মেয়েকে নিয়ে সংসার ছিলো। এক মেয়ে ও এক ছেলের বিয়ে হয়েছে। ছোট ছেলে রতন মিয়ার বয়স ২৮বৎসর। সে কিছুই করে না। করে একটাই সেটা হলো নেশা আর চুরি। নেশার টাকার জন্য আমাকে ও তার মাকে সে এর আগেই কয়েকবার মেরেছে। আমার মাত্র ৫শতাংশের ভিটেবাড়ি। তা রতন লিখে নিতে চায়। রাজি না হওয়ায় আমাকে মারপিট করে, ফিরাতে এলে তার মাকেও মারে। এক পর্যায়ে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে মেরে ফেলতে চেয়েছিলো। বাড়ির সব আসবাবপত্র, নলকূপ ও হাঁড়িপাতিলও ভেঙ্গে ফেলেছে। নিজ পুত্রের নির্যাতনের বর্ণনা দিতে গিয়ে বারবার কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন আলিম উদ্দিন।

তিনি আরো জানান, আমাকে ও ওর মাকে নির্যাতন প্রায়শ: করে আসছে। আজ আমি খুব ক্ষুধার্ত ছিলাম, বারবার বলেছি ‘খাওয়ান নাই দিলে, খেতে দে’। এরপরেও খাইতে দিলো না। মেরে ফেলতে চাইলো। গ্রামবাসী ওকে আটক না করলে, জোড়া লাশ দেখতেন।

ডৌহাখলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুল হক সরকার জানান, পিতা-মাতাকে এভাবে নির্যাতন দু:খজনক, কলঙ্কময়। কয়েকবার সালিশ করার পরেও রতনকে থামানো যায়নি। বারবার ওর বাবা-মাকে সে নির্যাতন করেছে। চুরির ঘটনায় এর আগেও তাকে পুলিশে দেয়া হয়েছিলো। ছেড়ে পেয়ে মাকে নির্যাতন ও এলাকার মানুষের ওপর অত্যাচার করে।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম মিয়া জানান, পুত্রের নির্যাতনের বর্ণনা বাবার মুখ থেকে শোনেছি। ছেলে বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

টি.কে ওয়েভ-ইন

Print Friendly, PDF & Email