Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

হুমায়ূন আহমেদের নামে ট্রেন চান ভক্তরা

আপডেটঃ 11:33 pm | July 19, 2019

বাহাদুর ডেস্ক:

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ দুটি জিনিস খুব পছন্দ করতেন। একটি জ্যোৎস্না, অন্যটি বৃষ্টি। যেদিন তিনি না ফেরার দেশে চলে গেছেন সেদিনও বৃষ্টি ছিলো। আজ সেই দিন। গুণে গুণে সাত বছর। সকাল থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে। প্রিয় লেখককে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করতে বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করেই গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে জড়ো হতে থাকে হুমায়ূন ভক্তরা। নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয় হুমায়ূন আহমেদের সপ্তম মৃত্যুবার্ষিকী।

শুক্রবার (১৯ জুলাই) সকালে ভক্তরা কালোব্যাজ ধারণ করে হুমায়ূন আহমেদের স্মরণে গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে শোকর‌্যালী বের করে। র‌্যালি শেষে হুমায়ূন আহমেদ স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে হুমায়ূন আহমেদের নামে একটি ট্রেনের নামকরণ করার দাবি জানান হুমায়ূন ভক্তরা।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, হুমায়ূন আহমেদ স্মৃতি পরিষদের সভাপতি মোতালিব বিন আয়েত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পীযুষ রায় গণেশ, সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম আল রাজ, সদস্য সঞ্জয় ঘোষ, সাপ্তাহিক রাজগৌরীপুরের উপদেষ্টা সম্পাদক আজম জহিরুল ইসলাম, সাংবাদিক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, মহসীন মাহমুদ,  মোজাম্মেল হোসেন প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, আমাদের গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনের পটভূমিকে কেন্দ্র করেই রচিত হয়েছে হুমায়ূন আহমেদের কালজয়ী উপন্যাস ‘গৌরীপুর জংশন’। ২০১২ সালে লেখকের মৃত্যুর পর থেকে গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে হুমায়ূন আহমেদের স্মৃতি রক্ষা ও উনার নামকরণে একটি ট্রেনের দাবি জানিয়ে আমরা  রেলমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদানসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছি। যেহেতু রেলযোগাযোগ ব্যবস্থায় ঈশা খান এক্সপ্রেস, বনলতা এক্সপ্রেস, মহুয়া এক্সপ্রেসসহ বিভিন্ন নামে ট্রেন চালু রয়েছে। তাই হুমায়ূন আহমেদের নামে ট্রেনের নামকরণের দাবিটি অযৌক্তিক নয়।

মানববন্ধন শেষে হুমায়ূন আহমেদের স্মরণে গৌরীপুর জংশনে ভক্তরা এক মিনিট নিরবতা পালন করেন।

Share to MessengerShare to WhatsAppShare to Print

Print Friendly, PDF & Email