Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

ময়মনসিংহে ট্রেনের ছাদে ঝুঁকি নিয়ে বাড়ি ফেরা

আপডেটঃ 12:05 am | August 11, 2019

প্রধান প্রতিবেদক :
স্বজনদের সাথে ঈদ উদযাপন করতে ট্রেনের ছাদে ঝুঁকি বাড়ি ফিরছে মানুষ। ট্রেনের ভেতরে তিল ধারণের ঠাঁই না থাকায় ঘরফেরা মানুষগুলো মৃত্যু ঝুঁকি নিয়ে ট্রেনের ছাদে চড়ে বসেছে। গতকাল শনিবার গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে গিয়ে দেখা যায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও ভৈরব থেকে ছেড়ে আসার ট্রেনের ছাদগুলোতে উপচে পড়া ভীড়।

যাত্রীরা জানান, বাসে অতিরিক্ত ভাড়া, যানজট ও ট্রেনের টিকিট সঙ্কট ও কালোবাজারী হওয়ায় যাত্রীরা ট্রেনের ভেতর জায়গা না পেয়ে ছাদে চড়ে বাড়ি ফিরছে। এতে করে দুর্ভোগ পোহাতে হলেও বাড়ি ফেরার আনন্দে সবাই খুশি।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, গৌরীপুর রেলওয়ে স্টেশন হয়ে প্রতিদিন ৩টি রুটে আন্তনগর, লোকাল ও মেইল সহ ৩২টি ট্রেন চলাচল করে। ঈদ উপলক্ষে যাত্রীর তুলনায় টিকিট সঙ্কট থাকার কারণে যাত্রীরা ট্রেনের ছাদে চড়তে বাধ্য হয়।

শনিবার সকালে গৌরীপুর রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রাবিরতি করে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জারিয়াগামী বলাকা কমিউটার ট্রেন। ট্রেনের ইঞ্জিন, প্রতিটি বগি ও ছাদে ছিলো যাত্রীদের উপচে পড়া ভীড়। বগিতে দাঁড়ানোর জায়গা না পেয়ে যাত্রীরা বাথরুমে দাড়িয়ে বাড়ি ফিরছেন।
শনিবার দুপুরে গৌরীপুর রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রাবিরতি করে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর বিজয় এক্সপ্রেস। ঈদ উপলক্ষে ট্রেনে একাধিক বগি সংযোজন করলেও তিল ধারণের ঠাই ছিলো না ট্রেনে। যাত্রীরা ট্রেনের ছাদে ও ট্রেনের দরজায় বাদুরঝুলা হয়ে বাড়ি ফিরছেন। অনেক যাত্রী ছাদে জায়গা না পেয়ে ট্রেনের ইঞ্জিনের ছাদে চড়ে বাড়ি ফিরছেন।

একই চিত্র ছিলো ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা মোহনগঞ্জগামী আন্তঃনগর মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ও ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা মোহনগঞ্জগামী মহুয়া কমিউটার, ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা জারিয়াগামী লোকাল ট্রেন ও ভৈরব থেকে ছেড়ে ভৈরব লোকাল ও ঢাকা থেকে ভৈরব হয়ে ছেড়ে আসা ময়মনসিংহগামী ঈশা খান এক্সপ্রেস ট্রেনেও।

টি.কে ওয়েভ-ইন

Print Friendly, PDF & Email