Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

পূর্বধলা-শ্যামগঞ্জ সড়ক ৪ঘন্টা অচল ॥ বাবার হাতে ধরা মাইশাকে পিষে দিলো ট্রাক!

আপডেটঃ 5:35 pm | November 07, 2019

প্রধান প্রতিবেদক  :
বড় দু’বোন এবার জেএসসি পরীক্ষার্থী। ওদেরকে বাবার সঙ্গে এগিয়ে দিতে এসেছিলো ছোট্ট মাইশা। বয়স মাত্র পাঁচ বছর। বাবার হাত ধরে রাস্তায় হাঁটছিলো। বোনদের মতো বড় হওয়ার স্বপ্নের কথাও বলছিলো বাবার সঙ্গে। ঠিক সেই মুর্হূতেই পিছন দিক থেকে দ্রুতগামী ট্রাক পিষে দেয় মাইশা ও তার স্বপ্নগুলোকে।

এ ঘটনা ঘটে নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলা উপজেলার তোলা পাবই এলাকায় বুধবার (৬ নভেম্বর/১৯) সকালে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, খলিশাউর ইউনিয়নের তোলা পাবই গ্রামের আজিজুল ইসলাম তার বড় দুই মেয়ে জেএসসি পরীক্ষার্থী রিতু আক্তার ও রিয়া আক্তারকে বুধবার সকালে এগিয়ে দিতে পূর্বধলা-শ্যামগঞ্জ সড়কে আসেন। এ সময় সঙ্গে আসে শিশু কন্যা মাইশা আক্তারও। অটোরিকশায় দু’মেয়েকে উঠিয়ে বাড়ি ফিরছেন। বাবার হাতে হাত ধরেই বাড়ি ফিরছিলো মাইশা। বড় বোনদের বিদায় আর পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা চলছিলো। সেই আপুদের মতো বড় হবে, লেখাপড়া করবে-এসব আলোচনা চলছিলো। ঠিক সেই মুর্হূতে ট্রাক ( ঢাকা মেট্রো ট-২২-৮২৫৩) পিছন দিক থেকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মাইশার মৃত্যু হয়। ঘটনার পরপরই উত্তেজিত এলাকাবাসী পূর্বধলা-শ্যামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন। মাইশার হত্যাকারীদের বিচারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেন।

খবর পেয়ে পূর্বধলা থানার পুলিশ ও শ্যামগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁেছ উত্তেজিত জনতাকে তাদের দেয়া দাবী দাওয়া মেনে নেয়ার আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী অবরোধ প্রত্যাহার করেন। অবরোধকালে দু’পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ তাওহিদুর রহমান জানান, তার পরিবারের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

টি.কে ওয়েভ-ইন

Print Friendly, PDF & Email