Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

জেলা পরিষদ ভবনে আগুনে পুড়ে গেছে সাড়ে ৫ হাজার কম্বলসহ বিভিন্ন মালামাল : ৯ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

আপডেটঃ 3:41 pm | February 06, 2018

স্টাফ রিপোর্টার :
ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ ভবনে গতকাল সোমবার ভোররাতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে জেলা পরিষদ ভবনের ভিতরে একটি রুমের মধ্যে থাকা অসহায় ছিন্নমূল মানুষের মাঝে বিতরণের সাড়ে ৫ হাজার কম্বল, তিনটি আলমারী, একটি মোটরসাইকেল, একটি ফটোকপি মেশিন, বুকসেলফসহ বিভিন্ন ফার্নিচার পুড়ে গেছে। এতে প্রায় ৮০ লাখ টাকার তি হয়েছে। এ ঘটনায় জেলা পরিষদের উপ সহকারী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক কোতোয়ালী মডেল থানায় জিডি করেছেন। এছাড়া জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম লোকমানকে প্রধান করে ৯ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
জেলা পরিষদ ও ফায়ার সার্ভিস সুত্রে জানা গেছে, সোমবার ভোর রাতে জেলা পরিষদের একটি রুমে (নীচতলা) আগুনের সুত্রপাত ঘটে। আগুনে ঐ রুমে থাকা বিনামুলে বিতরণের জন্য (জেলা পরিষদের নিজস্ব অর্থায়নে) সাড়ে ৫ হাজার কম্বল, তিনটি আলমারী, একটি মোটরসাইকেল, একটি ফটোকপি মেশিন, বুকসেলফ বিভিন্ন ফার্নিচারসহ ভবনের বিভিন্ন অংশ পুড়ে ব্যাপক য়তি হয়। এর আগে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দীর্ঘ চেষ্ঠা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের মতে বিদ্যুতের সট সার্কিট থেকে এ আগুনের ঘটনা ঘটতে পারে। জেলা পরিষদের প্যানেল মেয়র মমতাজ উদ্দিন বলেন, প্রথমবারের মত জেলা পরিষদের নিজস্ব অর্থায়নে ছিন্নমুল মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণের উদ্দেশ্যে উদ্দোগ নেওয়া হয়। এ কম্বল পুড়ে যাওয়ায় পরিষধ মারাত্বক তিগ্রস্থ হলো। জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী ওয়াহেদুজ্জামান বলেন ভোর রাত চারটার দিকে এ আগুনের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উপ সহকারী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক থানায় জিডি করেছেন। এছাড়াও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রধান করে নয় সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধিম পুলিশ সুপারের প্রতিনিধি, গনপুর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী, জেলা পরিষদের প্যানেল মেয়র-৩ ফারজানা শারমীন, সদস্য আবু বকর সিদ্দিক, ফায়ার সার্ভিস প্রতিনিধিদলসহ বিভিন্ন কর্মকর্থাগণ রয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email