Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

মন ভালো করার মেডিসিন এবারের বই মেলায় সত্যাজিৎ বিশ্বাস রানা’র জোকসের বই ‘রাম গরুড়ের ছানা, হাসতে তাদের মানা’ এর মোড়ক উন্মোচন

আপডেটঃ 11:08 pm | February 06, 2018

সেলিম আল রাজ :

সুন্দর এ ভুবনে বিষন্নতা-মোরে যখন ভারাক্রান্ত করে তুলে। তখন আমার মনে হয় সত্যাজিৎ বিশ্বাস রানার সঙ্গে একটু কথা বলি। এ কথা বলা, তার সঙ্গে নয়, তারই লেখা বই এর সঙ্গতা নেয়া। ঠিক মন ভালো করার এমন এক মেডিসিন ‘রাম গরুড়ের ছানা, হাসতে তাদের মানা’। মুর্হূতেই মন ভালো হবে, একবার পড়ুন, তাহলে বারবার পড়তে মন চায়।

একটা বই কিনবে তাকে দুইটা ফ্রি দেবো-এমন সুযোগ হয়তো কেউ হাত ছাড়া করতে চাইবেন না, তাদের জন্যই এ বই। পৃথিবীতে যতো প্রতিযোগিতা হয়েছে সেখানে সেরা হওয়ার সব প্রতিযোগীর ছিলো। বই প্রেমিক-প্রেমিকাদের জন্য সেরা ৩ হওয়ার সুযোগ রয়েছে জোকস বইটিতে। বউ এর পাশে বসে আপনি ফিরেও যেতে পারেন ভালবাসার দিনগুলোতে।

জোকস : বইমেলায় বিজ্ঞাপন :

লেখকঃ আজকে যে আমার একটা বই কিনবে তাকে দুইটা ফ্রি দেবো।

বই ক্রেতাঃ ভাই, এই যে বই কিনে নিয়ে আসলাম। এখন দুইটা ফ্রি দেন।

লেখকঃ অবশ্যই। বইটা খোলেন- এই নেন অটোগ্রাফ, পাশে দাঁড়ান এই নেন ফটোগ্রাফ।

অমর একুশে বইমেলায় রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি/১৮) মোড়ক উন্মোচন হয় সত্যজিৎ বিশ্বাস-এর জোকসের বই- ‘রাম গরুড়ের ছানা, হাসতে তাদের মানা’ এবং কিশোর উপন্যাস ‘শ্রেয়সীর ডাইরী’।

বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধান অতিথি প্রখ্যাত কার্টুনিষ্ট আহসান হাবীব। তিনি বলেন, সত্যজিৎ তার লেখনী প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে ‘উন্মাদ’ পত্রিকার সাথেও জড়িত। দৈনিক পত্রিকায় জোকস লেখার পাশাপাশি তাকে সিরিয়াস লেখা লিখতেও উদ্বুদ্ধ করেছিলাম। সত্যজিৎ তাঁর কথা রেখেছে।

জোকস : আগেরটা পরে, পরেরটা আগে :

স্ত্রীঃ তোমার মত এত খারাপ লোক জীবনে দেখিনি। একদিন তোমাকে নিজ হাতে গুলি করে মেরে তারপর গলায় দড়ি দেবো। স্বামীঃ একদিন কেন? সাহস থাকে তো, আজই করে দেখাও। শুধু পরের কাজটা আগে আর আগের কাজটা পরে করো তো।

চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের প্রফেসর ডঃ রবীন্দ্রনাথ শীল বলেন, তিনি একজন হাসি খুশি প্রিয় মানুষ। হাসানোর মত কঠিন বিষয়টিকে চমৎকারভাবে প্রকাশ করেছেন তার ছড়ার বইটিতে। আমারও প্রিয় একজন মানুষ সত্যজিৎ রানা। তার সৃজনশীল বইটিতে কেমন হয়েছে- সে মূল্যায়ন আপনারা করবেন।

জোকস: চলো ফিরে যাইঃ স্ত্রীঃ বিয়ের আগে আমাকে কত ভালবাসতে। এখন তো একটুও ভালো বাসো না। স্বামীঃ ঠিকই বলছো। আমাদের উচিৎ ভালবাসার দিনগুলোতে ফিরে যাওয়া। —

প্রিয়মুখ প্রকাশনীর সামনে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে পড়ন্ত বিকেলে বইটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা- ডাঃ মীর মোস্তাফিজুর রহমান, পি আই ইউ’র  প্রোগ্রাম অফিসার- ডাঃ সানজিদা খাতুন, বাপসা অঞ্চল-৩ এর প্রকল্প পরিচালক ডাঃ পূরবী আহমেদ, বকশিবাজার ক্লিনিক ম্যানেজার ডাঃ সালেহা বেগম।

ডঃ রবীন্দ্রনাথ শীল বলেন, আমি ওর লেখা আগেও পড়েছি। মুগ্ধও হয়েছি। আমি মনে করি- সবেতো শুরু, ওর আরো অনেক দেয়ার বাকী আছে। সাহিত্যের প্রতিটা ক্ষেত্রে অবদান রাখুক এ কামনা করি। ডাঃ সানজিদা খাতুন বলেন- অফিসের কাজের চাপের মধ্যে পড়ে যেন লেখালিখির উৎসাহ হারিয়ে না যায়। দু, চার বছর লেখার পর আমি এমন অনেক লেখককে হারিয়ে যেতে দেখেছি। শত চাপের মধ্যেও যেন লেখা অব্যাহত থাকে। প্রকল্প পরিচালক ডাঃ পূরবী আহমেদ বলেন- ও আমাদের গর্ব। ওর লেখা জোকসের বই, ছোট গল্পের বই পড়েছি। এবার এসেছে উপন্যাস। দোয়া করি- আরো অনেক সাফল্য তার পালকে যোগ হোক।

জোকস : সেরা তিনঃ

কি সেই তিন- যা শত চেষ্টা করেও বোঝা যায় না? ১। নারীর মন ২। রাজনীতি আর… আর… আর… ৩। ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন। —

জোকস : চুরিতে পুরোটাই আমারঃ

পুলিশঃ কিরে চুরি করিস কেন?

চোরঃ ডাকাতি করলে ভাগা দিতে হয় যে। চুরি করলে তো পুরোটাই আমার।

জোকস : স্টার না মুন :

মাঃ কিরে সবার রেজাল্ট কার্ডে স্টার ভর্তি, তোরটায় সব গোল্লা? ছেলেঃ কি যে বলো? স্টার তো সবাই পায়, আমি পাই ফুল মুন। —

জোকস : একদিন পার্কেঃ

ব্যাচেলার বন্ধুঃ দেখ, লোকটা কি রোমান্টিক দৃষ্টিতে বউয়ের সাথে কথা বলছে।

বিবাহিত বন্ধুঃ তাহলে ওটা ওর বউ না। বিবাহিতরা কখনো বউয়ের দিকে রোমান্টিক দৃষ্টিতে তাকিয়ে কথা বলেনা।

ভালো বক্তাঃ -বিবাহিত পুরুষেরা কখনো ভালো বক্তা হতে পারেনা। – পারবে কি করে? প্র্যাকটিস করার সুযোগ থাকলে তো…

যদি হারিয়ে যাইঃ স্বামীঃ আচ্ছা, আমি যদি কখনো হারিয়ে যাই, কি করবে? স্ত্রীঃ তোমার ছবি দিয়ে পেপারে হারানো বিজ্ঞপ্তি দেবো, থানায় খুঁজবো, হাসপাতালে খুঁজবো। ওগো, আমি যদি কখনো হারিয়ে যাই, তুমি কি করবে? স্বামীঃআমি তখন শোকে, দুঃখে পাগল হয়ে তোমার যত ছবি আছে, সব ছিঁড়ে, পুড়ে নষ্ট করে ফেলবো। স্ত্রীঃ কি বললে? আমাকে তুমি এই ভালোবাসো? স্বামীঃ আমি কি তোমার মতো? তুমি হারিয়ে গেলে আমার মাথা ঠিক থাকবে?

Print Friendly, PDF & Email