Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

মেগানের বিয়েতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা

আপডেটঃ 4:56 pm | May 19, 2018

বাহাদুর ডেস্ক:

বান্ধবী মেগান মার্কেলের বিয়েতে অংশ নিতে গতকাল শুক্রবার ইংল্যান্ডে হাজির হয়েছেন বলিউড ও হলিউডের তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মেগান ও প্রিন্স হ্যারির রাজকীয় বিয়েতে বলিউডের এই তারকা থাকবেন কি না, তা নিয়ে ছিল অনেক ধোঁয়াশা। সম্প্রতি প্রিয়াঙ্কা নিজেই নিশ্চিত করেছেন এই বিয়েতে তাঁর উপস্থিতির কথা। জানিয়েছেন, হবু রাজবধূ ও বান্ধবী মেগানের বিয়ের জন্যই এবার ইংল্যান্ডে যাচ্ছেন। আগামী ১০ দিন সেখানেই থাকবেন তিনি। বিয়ের আসর থেকে মাত্র ১০ মাইল দূরে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও কনের অন্য বন্ধুদের থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের উইন্ডসর ক্যাসেলের সেন্ট জর্জেস চ্যাপেল গির্জায় আজ শনিবার গ্রিনিচ সময় বেলা ১১টায় প্রিন্স হ্যারি আর মেগান মার্কেলের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে। এরই মধ্যে অনুষ্ঠানের চূড়ান্ত প্রস্তুতি পর্ব সম্পন্ন হয়েছে। কনের বান্ধবীরাও নিজেদের মতো প্রস্তুতি নিচ্ছেন। যুক্তরাজ্যের স্থানীয় সময় মধ্যরাতে ইনস্টাগ্রামে মেগানের বিয়ের প্রি ওয়েডিং সেলিব্রেশনের একটি ছবি প্রকাশ করেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ছবিতে প্রিয়াঙ্কা ছাড়া মেগানের অন্য বান্ধবীদেরও দেখা যায়। ছবির ক্যাপশনে প্রিয়াঙ্কা লিখেছেন, ‘রাত ১২টা বেজে ১০ মিনিট। পোশাকের জন্য অপেক্ষা করছি।’ তবে সেই কারণে প্রিয়াঙ্কাকে খুব বেশি বিচলিত মনে হচ্ছে না। কারণ, বিয়েতে পরার পোশাক তখন পর্যন্ত এসে না পৌঁছালেও বন্ধুদের সঙ্গে আনন্দ করে সময় কাটাচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা।

মেগানের অন্য বান্ধবীদের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কামেগানের অন্য বান্ধবীদের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কামার্কিন টিভি সিরিজ ‘কোয়ান্টিকো’র তারকা প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে মেগানের বন্ধুত্ব আগে থেকেই। বছর চারেক আগে কানাডার টরন্টোতে এক পার্টিতে দুজনের প্রথম আলাপ হয়। মেগান তখন সেই শহরে তাঁর ‘স্যুটস’ টিভি সিরিজের শুটিং করছিলেন, আর প্রিয়াঙ্কা ছিলেন মার্কিন টিভি সিরিজ ‘কোয়ান্টিকো’র কাজে। দুই বছর আগে মেগান তাঁর লাইফস্টাইল ব্লগের জন্য বলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার একটি সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় তাঁর সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠ হন। যুক্তরাষ্ট্রে এখন প্রিয়াঙ্কার যে কয়েকজন বন্ধু আছেন, তাঁর মধ্যে মেগান সবচেয়ে কাছের। প্রিন্স হ্যারির সঙ্গে বাগদানের আগে প্রায়ই প্রিয়াঙ্কা ও মেগান একসঙ্গে ঘুরতে বের হতেন, আড্ডা দিতেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও এই দুই বন্ধুর অসংখ্য ছবি চোখে পড়ে।

গত বছর নভেম্বরে রাজপরিবার থেকে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেলের বাগদানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসে। মেগানের জীবনের নতুন এক অধ্যায়ের সূচনায় সে সময় আনন্দ প্রকাশ করেন প্রিয়াঙ্কা। ইনস্টাগ্রামে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেলের একটি ছবি প্রকাশ করে তাঁদের শুভেচ্ছা জানান প্রিয়াঙ্কা। বন্ধু মেগানকে প্রিয়াঙ্কা শুভেচ্ছা জানিয়ে লেখেন, ‘অভিনন্দন আমার বন্ধু। মেগান মার্কেল ও প্রিন্স হ্যারি, তোমাদের দুজনকেই অভিনন্দন। মেগান, আমি তোমার জন্য ভীষণ খুশি। জীবনে সব সময় সেরাটাই তোমার প্রাপ্য। এভাবেই হাসতে থাকো, যে হাসি তুমি সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে জানো।’

প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেলপ্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেলগুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, বিয়েতে মেগানের ‘ব্রাইডস মেড’ হতে পারেন প্রিয়াঙ্কা। সম্প্রতি এই গুঞ্জনও খোলাসা হয়। ব্রিটিশ রাজপরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, হ্যারির বাবা প্রিন্স চার্লস মেগানকে নিয়ে বিয়ের মঞ্চের দিকে যাবেন। তবে বিয়ের আসরে বেশির ভাগ সময় মেগান একাই হেঁটে আসবেন। এ সময় তাঁর পাশে থাকবেন বন্ধুরা। বন্ধুদের মধ্যে প্রিয়াঙ্কার থাকার সম্ভাবনা আছে। তবে মেগান কাউকে ব্রাইডস মেড বা ব্রাইড অব অনার হিসেবে নেবেন না। এতে প্রিয়াঙ্কার একটুও মন খারাপ নয়। দারুণ উচ্ছ্বসিত প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘মেগানের মতো এক দারুণ ব্যক্তিত্বকে সারা বিশ্ব আইকন হিসেবে পেতে যাচ্ছে ভেবে আমি যারপরনাই খুশি।’

এই রাজকীয় বিয়েকে কেন্দ্র করে বেশ আগে থেকেই উইন্ডসর ক্যাসেল এলাকায় সাজসাজ রব উঠেছে। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা উইন্ডসর ক্যাসেল ও এর আশপাশের এলাকাকে একপ্রকার দুর্গেই পরিণত করেছে। নবদম্পতিসহ রাজপরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সম্ভাব্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, নবদম্পতিকে স্বাগত জানাতে আজ হাজারো মানুষের ঢল নামবে উইন্ডসর ক্যাসেল এলাকায়।

Print Friendly, PDF & Email