Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

ব্রেকিং নিউজঃ

পুরাণে বেঁধেছি নতুন প্রাণ || রেবেকা সুলতানা

March 31, 2019

নয় ভাইবোনের সংসারে বেড়ে উঠা এই আমিটা কত না রঙিন স্বপ্ন দেখতাম। আত্মকেন্দ্রিকতায় ভরা স্বপ্নগুলোর মধ্যে ছিল- কখনও আমি ডাক্তার হতে চাইতাম। সাদা এপ্রোনে বেশ মানানসই লাগবে আমাকে ভেবে কি যে পুলকিত হতাম! আবার কখনো সিনেমার গল্পে দেখে তাদের মতোই ব্যারিস্টার হতে চাইতাম। কালো কোট আর কালো গাউন পরা ব্যারিস্টার আমি হবোই হবো। কিন্তু অনাকাঙ্ক্ষিত নম্বর কাঙ্ক্ষিত স্বপ্নের বারান্দায় হাটতে দিলোনা। তাতে কি স্বপ্ন দেখাই ছেড়ে দিবো? আবার অন্য ইচ্ছা ভর করলো। এইবার আমি হয় এডমিনিস্ট্রেটর নয় শিক্ষক হয়েই ছাড়বো। অবশেষে ক্যারিয়ার গড়ার মাঝপথে নিজের জীবন বেধে নিলাম অন্য জীবনের সাথে পরিবারের সাধে। বাহ! এতো অন্য জগত! স্বপ্ন আবার বাক নিলো অন্য রাস্তায়। নতুন জীবন একদিকে অন্যদিকে ভাই বোন সব নিয়ে রকমারি সংসারে অভ্যস্ততা, আর রকমারি স্বপ্ন। সময় পার করে ফুটফুটে তিন সন্তানের মা হলাম একে...

“আবোল তাবোল কথকতা! ছেলে জিতলে জিতে যায় মা!” -রেবেকা সুলতানা

March 29, 2019

টিভিতে এড দেখছিলাম - "আমি জিতলে জিতে যায় মা!" মনে হলো কি দারুন সত্যি কথাটি বিজ্ঞাপনে যুক্ত হয়েছে | সত্যিই তো সন্তান জিতলে জিতে যায় মা! ঠিক একইভাবে সন্তান হাসলে মা হাসে, সন্তান কাদলে মা কাদে!! আমার ছোট ছেলে জাহিন তার থিয়েটারের গুরু মুনসুর ভাই এর সাথে বরিশাল, পটুয়াখালি ও কুয়াকাটা ভ্রমনে যায়। ওহ মুনসুর ভাই? অনসাম্বল থিয়েটারের কর্নধার | যাওয়ার দিন জাহিন স্কুলে ছিল। তৃতীয় শ্রেণিতে পড়া আমার ছোট্র বাচ্চাটি জানতোনা স্কুল থেকে ফিরতে না ফিরতেই তাকে রওনা করতে হবে ভ্রমনে। তার মঞ্চপ্রিয় গুরু ফোন করে বললেন জাহিন কে নিয়ে ট্যুরে যাব তাকে রেডি করুন | আমরা ঠিক তিনটায় রওনা করবো। ভাবলাম মায়ের নিত্য অফিস আর বাবার দূরে থাকার ছেলে একলা ঘরে বড় হওয়া ছেলেটা নিশ্চয়ই আনন্দ পাবে। তাই রীতিমতো চ্যালেঞ্জ নিয়ে মুহুর্তে বাজারে ছুটে সমুদ্র স্নান উপযোগী কাপড় চোপড় রেডি করে তাকে স্কুল থেকে আনতে...

নারী বৈষম্য দূরীকরণ ও কিছু প্রশ্ন || মালবিকা পাল

March 12, 2019

নারী বৈষম্য দূরীকরণ, নারী অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য সরকারিভাবে অনেক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এ পদক্ষেপগুলো ফলপ্রসু হয়েছে। কিন্তু সার্বিক দিকে হচ্ছে কি? একজন নারী চাইলেই কি যখন খুশি তখন ঘর থেকে বের হতে পারছে? সে কি যৌন হয়রানির ভয়ে দূরে একা বের হতে পারছে? কর্মস্থলে তাকে কেন বারবার পুরুষের মতোই সে কাজ করতে সক্ষম তা প্রমাণ করতে হয়? নারী কেন নিজের পরিচয়ে পরিচিত হতে পারে না? এ প্রশ্নের উওরগুলো আমরা কখনো খুঁজে দেখি কি? আসলে জন্মলগ্ন থেকে এ বিভেদটা সৃষ্টি হয়। ভাবছেন কিভাবে? যখন একটা শিশুর জন্ম হয় তখন জানতে চায় কি বাবু হইছে! মেয়ে নাকি ছেলে? শিশুটি যখন স্কুলে যায় তখন একদিকে মেয়ে আর অন্যদিকে ছেলেদের বসানো হয়। আমাদের দেশের মেসে, মেয়ে হোস্টেল, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে ডুকবার ও বাহিরে যাওয়ার জন্য মেয়েদের নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে | কিন্তু ছেলেদের...

সমাজ ও ধর্মীয় কূপমন্ডুকতা || আল ইমরান মুক্তা

March 09, 2019

আল ইমরান মুক্তা বিশ্বাস সমাজ গড়ার কারিগর। কেননা বিশ্বাস সমাজকে চিত্রায়িত করে। তাই মানুষের বিশ্বাস কেমন এবং কোন ধারায় প্রবাহিত এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ বিশ্বাস মানুষকে সঠিক বা ভুল উভয় পথে পরিচালিত করে। প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব বিশ্বাসের পরিমণ্ডল রয়েছে। বিশ্বাস মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করে। অন্যভাবে বলতে গেলে, মানুষ বিশ্বাসের দাস। বিশ্বাস সব সময় আদর্শিক নাও হতে পারে। কখনও এর ভয়ঙ্কর দিকটি স্বরূপে আসতে পারে। মানুষ যা বিশ্বাস করে তা জীবনের প্রতি ক্ষেত্রে প্রয়োগে আপ্রাণ চেষ্টা চালায়। বিশ্বাস গড়ে উঠে দুটি দিক থেকে। জ্ঞান কিংবা অজ্ঞতা থেকে। জ্ঞান সুন্দর ও সঠিক বিশ্বাস জাগ্রত করে। কিন্তু অজ্ঞতা, কুসংস্কার ও অন্ধতা বিশ্বাসের টুটি চেপে ধরে। সত্যিকার অর্থে, অজ্ঞতা অন্ধকূপে নিমজ্জিত করে। মানুষকে অন্ধ করে দেয়। মানুষ তখন মিথ্যা বিশ্বাসের প্রতি অনুরাগী হয়ে...

ইনফার্টিলিটি কেস স্টাডি | জেনে নিন বন্ধ্যাত্বের ৩টি বাস্তব ঘটনা!

March 09, 2019

সব পরিবারেরই স্বপ্ন থাকে ঘর আলো করে ফুটফুটে একটি কন্যা বা পুরো বাড়ি তোলপাড় করা এক রাজপুত্র। কিন্তু বাচ্চা কনসিভ করতে ইচ্ছুক অনেক দম্পতিদেরই সঠিক দিক নির্দেশনার অভাবে পড়তে হয় জীবনের নানান বিপর্যয়ের মুখে। একজন ডাক্তার হিসেবে আমি এসকল সমস্যার একজন প্রত্যক্ষদর্শী। অনেকের ধারণা থাকে যে শুধু কম বয়স হলেই বাচ্চা কনসিভ করতে কোন সমস্যা হয় না। অথচ এ ধারণাটি সম্পূর্ণ ভুল। যেকোনো বয়সেই বাচ্চা নেবার ক্ষেত্রে যে সমস্যা হতে পারে সেরকমই ৩টি ইনফার্টিলিটি কেস নিয়ে আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। ইনফার্টিলিটি কেস-১ রোগীর নাম তানিয়া (ছদ্দনাম), বয়স ২৯। সে এসেছিল ফলিকুলোমট্রি রিপোর্ট নিয়ে। দেখলাম রিপোর্ট সেই একই অবস্থা, তার ওভারিয়ান ফলিকলগুলো ইনজেকশন দেওয়ার পরেও বড় হয় নি, অর্থাৎ রেজিস্টেন্ট হয়ে গেছে। দীর্ঘদিন সে পলিসিসটিক ওভারিয়ান সিনড্রোম (PCOS)-এ ভুগছিল, এখন আর...

মা কেন কাঁদে! মা-মায়ের অনুভূতি_ রেবেকা সুলতানা ||

February 02, 2019

মা, কি অদ্ভুত চরিত্র, তাইনা? কতো কারনে যে মায়ের চোখে জল আসে ভেবে পাইনা। যখন অনেক ছোট ছিলাম মা কে দেখতাম কারনে অকারনে চোখ মুছে চলে। ভাই বোন বাড়িতে এলে কাঁদে, বাড়ি থেকে যাওয়ার সময় কাঁদে, চাকরিতে প্রমোশন পেলেও কাঁদে, এলোমেলো জায়গায় পোস্টিং পেলেও কাদে, নাতি পুতিদের পরীক্ষার ফল খারাপ হলেও কাঁদে আবার সাফল্যেও অশ্রুসজল হয়। অবাক হয়ে ভাবি কেন কাঁদে এ মহিলা সবকিছুতে! মানুষ তো আনন্দের ঘটনায় হাসবে আর বিষাদে কাঁদবে, তাইনা? মাকে জিজ্ঞেস করলে বলে - আনন্দে কান্না আসে। আনন্দে আবার কেউ কাঁদে নাকি? কি বলেন আম্মা!! -দিন যায় অভিজ্ঞতা বদলে যায়। একদিন শৈশব ছিল- কড়া শাসন কিংবা যা চাচ্ছি তা না হলে কান্না আসতো! আস্তে আস্তে বড় হয়েছি জীবনের নানান সময়ে নানান ঘটনায় কখনো হেসেছি কখনো কেঁদেছি। হাসি এবং কান্নার মাঝেই তো জীবন, তাইনা? কিন্তু! যতোই মা হয়ে উঠছি কারনে অকারনে চোখে জল চলে আসে। আজ হয়তো বুঝি-...

রোহিঙ্গা ইস্যু : মানবতার বিষফোঁড়া

November 22, 2018

বাহাদুর ডেস্ক ২০১৭ সালের আগস্টের মাসটি ছিল বিশ্বে আলোচিত মাস। সবশেষ সে থেকেই আলোচনায় আসে মিয়ানমার। সেই সঙ্গে মানবতা দেখানোর কারণে শেখ হাসিনার সরকারও প্রশংসিত হয়। প্রশংসিত হবে না কেন? শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সরকার যে মানবতা দেখিয়েছে, তা বিশ্বে নজির সৃষ্টি করেছে। মিয়ানমারে সু চি সরকার রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যে অমানবিক আচরণ করেছে, তা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। পৃথিবীতে মর্যাদার সঙ্গে বেঁচে থাকার জন্য মানুষের যে মৌলিক অধিকার, তা-ই মানবাধিকার। যেমন : নিরাপত্তা, বাকস্বাধীনতা, সম্পত্তির মালিকানা, ধর্ম পালনের অধিকার। এসব অধিকার নিশ্চিত করার জন্য পৃথিবীতে প্রথম লিখিত যে সনদ হয়েছিল, তার নাম ম্যাগনা কার্টা। ম্যাগনা কার্টা কাগজে-কলমে থাকলেও ঐতিহাসিকভাবে স্বীকৃত প্রথম লিখিত সনদ ‘মদিনা সনদ’ বলে উল্লেখ করা হয়। মানবাধিকার, মানবিকতা, মানবতা, বিবেক একই সুতোয়...

তারেকের কেন যাবজ্জীবন !!! মিশ্র প্রতিক্রিয়া

October 11, 2018

বাহাদুর ডেস্ক ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে শুরু হয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। একাধিক মন্ত্রীসহ আওয়ামী লীগ সংশ্নিষ্টরা বলছেন, তারেক এই হামলার প্রধান রূপকার। তার মৃত্যুদণ্ড হওয়াই উচিত ছিল। বাবরসহ ১৯ জনের ফাঁসি হলে একই অপরাধে তারেকের যাবজ্জীবন সাজা হতে পারে না। ফাঁসির দণ্ড চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ উচ্চ আদালতে আপিল করবে। তারেকের সর্বোচ্চ সাজা না হওয়ায় আদালত প্রাঙ্গণেই হতাশা ব্যক্ত করেছেন ২১ আগস্ট হামলায় নিহতদের স্বজন এবং আহতরা। অন্যদিকে বিএনপির পক্ষ থেকে তারেক রহমানকে নির্দোষ দাবি করা হয়েছে। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই রায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। এটি সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার নগ্নপ্রকাশ। রাষ্ট্রপক্ষের...

তারাকান্দায় সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময়

September 19, 2018

রফিক বিশ্বাস, (ময়মনসিংহ) তারাকান্দা  থেকে ॥ ময়মনসিংহের তারাকান্দায় জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, বীরমুক্তিযোদ্ধ এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে আজ বুধবার উপজেলা হল রুমে ময়মনসিংহ বিভাগীয় কশিনারের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। তারাকান্দা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন, ইউএনও সারমিন সুলতানা। উক্ত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন তারাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন তালুকদার, উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান এডভোকেট মোঃ ফজলুল হক, ভাইস চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ আলাউদ্দিন, নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলাম নয়ন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিলুফার ইয়াসমিন মনি, নব নির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সালমা আক্তার কাকন প্রমূখ। এ সময় তারাকান্দা উপজেলার সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সরকারি...

হাতছানি দিয়ে ডাকছে শহর

August 20, 2018

বাহাদুর ডেস্ক: গ্রামকে সবাই মনেপ্রাণে ভালোবাসে। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন। স্রেফ দুবেলা সময় কাটানো আর বিনোদনের জন্য হয়তো মানুষ গ্রামে ছুটে যায়। আর নয়তো শহরই সবার এক নম্বর পছন্দ। সবাইকে হাতছানি দিয়ে ডাকে শহর। আর সেটা লাখো প্রাণের শহর ঢাকা হলে তো কথাই নেই। রাজার শহর রাজধানী। রাষ্ট্রপ্রধান, মন্ত্রী থেকে শুরু করে স্বপ্নের মানুষ, রঙিন জগতের মানুষ সবাই ঢাকা থাকে। আমি কেন গ্রামে থাকব! কী নেই রাজধানীতে? কিন্তু রাজধানী কি আমাদের এই ভার সইতে পারছে! হাজারো প্রশ্নের জালে জর্জরিত ঢাকা আজ মুখিয়ে আছে উত্তরের জন্য। আর উত্তর মিলেছে। যুক্তরাজ্যের দ্য ইকোনমিস্ট সাময়িকীর ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের ২০১৮ সালের গ্লোবাল লিভেবলিটি ইনডেক্স বা বৈশ্বিক বসবাসযোগ্যতার সূচকে আমাদের রাজধানী নিচের দিক থেকে দ্বিতীয় হয়েছে। বসবাসের অযোগ্য জায়গা হিসেবে সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক এক নম্বরে,...