Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

| |

আগামী নির্বাচনে দুটি শক্তির লড়াই হবে-এমপি নাজিম

April 21, 2018

শফিকুল ইসলাম মিন্টু: আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুটি শক্তির মধ্যে লড়াই হবে। একটি শক্তি হবে স্বাধীনতার পক্ষের, আরেকটি শক্তি হবে স্বাধীনতার বিপক্ষের। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তির নেতৃত্বে থাকবে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। আর স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তির নেতৃত্বে থাকবে পাকিস্তানপন্থী বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া। আপনারা যারা ভোটার আছেন। তারাই ব্যালটের মাধ্যমে নির্ধারণ করবেন কোন শক্তিকে ক্ষমতায় আনবেন। তাই আপনাদের কাছে আমার দাবি আপনারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাইরের কোনো শক্তিকে ভোট দিবেন না, স্বাধীনতার বিপক্ষের কোনো শক্তিকে ক্ষমতায় আনবেন না। যদি স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি ক্ষমতায় আসে তাহলে ত্রিশ লক্ষ শহীদের আত্মা কষ্ট পাবে। শনিবার মইলাকান্দা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ময়মনসিংহ-৩- গৌরীপুর আসনের এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা...

গৌরীপুরে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানের জেরে ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ৩ বাড়িতে হামলা-ভাংচুরের অভিযোগ

April 21, 2018

গৌরীপুর প্রতিনিধি : পহেলা অনুষ্ঠানের জের ধরে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ২নং গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে শালীহর দক্ষিণপাড়ার ৩টি বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার (১৮ এপ্রিল/১৮) গৌরীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মৃত সাবেদ আলীর পুত্র মো. তারা মিয়া। এ দিকে ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন জানান, পহেলা বৈশাখের মেলা অনুষ্ঠানে শালীহর দক্ষিণপাড়া গ্রামের নোমান (১৩), আবু নাঈম (১৪) এদের সাথে মাজহারুল (১৫), মাছুম (১৪) সংঘর্ষ হয়। একই গ্রামে হওয়ায় আমার উপস্থিতিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর আপোষ করে দেই। আপোষের এক পর্যায়ে ওয়াহেদ আলীর পুত্র সামছুল হক (৫০) উত্তেজিত হয়ে অশালীন আচারণ করায় বাকবিত-ার হয়েছে। ভাংচুর বা অগ্নিসংযোগের কোন ঘটনা ঘটেনি। অপরদিকে মৃত সাবেদ আলীর পুত্র মো. তারা মিয়া জানান, চেয়ারম্যানের হুকুমে সন্ত্রাসীরা...

নতুন সড়কই খাল!

April 21, 2018

গৌরীপুর-বেখৈরহাটি সড়ক মেরামতের পরপরেই যেই ছিলো-সেই অবস্থায়! প্রধান প্রতিবেদক : গৌরীপুর-বেখৈরহাটির নূতন সড়ক ভেঙ্গে যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। গর্ত আর খানাখন্দক আর সৃষ্ট গর্ত দেখে মনে হয় ‘এ যেন নূতন সড়ক নয়, খাল’! ‘সিকিউরিটি মানি’ উত্তোলনের মেয়াদের আগেই রাস্তার এই বেহাল দশা। মেয়াদ উর্ত্তীণের ৪মাসেই ১৪ কিলোমিটার সড়কের ১২৯ পয়েন্টে ভাঙ্গন ধরেছে। সড়কের দু’পাশে মাটি ভরাট না করায় ব্রীজের গার্ডপোস্টও ভেঙ্গে গেছে। এ সড়কটি নির্মাণকালে অনিয়ম-দুর্নীতির চিত্র নিয়ে ২০১৬সালের ২০জুলাই দৈনিক যুগান্তরে ‘গৌরীপুর-লংকাখোলা সড়ক নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ’ শিরোনামে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপরেও প্রশাসন ও তদারকি কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নামকায়স্তে দায়সারাভাবে কাজ সম্পূর্ণ করে চলে যায় বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেন। এ প্রসঙ্গে গৌরীপুর...